Home / আবহাওয়া / সারা দেশে বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস

সারা দেশে বজ্রসহ বৃষ্টির আভাস

দেশের সব বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতভর বৃষ্টিতে ভিজেছে রাজধানী। এছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থানে ভারি বৃষ্টিপাতের খবর পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ঢাকায় দক্ষিণ-পূর্ব অথবা পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ১০ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হচ্ছে। সকালে ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতা ৮০ শতাংশ।

আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী, মঙ্গলবার সারাদিন দেশের বিভিন্ন স্থানে অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পার। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা বৃষ্টিপাতের প্রবণতা অব্যাহত থাকতে পারে। বর্ধিত ৫ দিন তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ ভারতের উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ-দক্ষিণ ওড়িশা উপকূল অতিক্রম করে দুর্বল হয়ে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। ফলে বাংলাদেশের ওপর থেকেও এর প্রভাব কেটে গেছে। তাই বাংলাদেশের চারটি সমুদ্রবন্দর থেকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে।

উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি পশ্চিম মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) মধ্যরাতে ভারতের উত্তর অন্ধ প্রদেশ-দক্ষিণ উড়িষ্যা উপকূল অতিক্রম করে গভীর নিম্ন চাপ হিসেবে উত্তর অন্ধ প্রদেশ এবং এর আশ পাশের দক্ষিণ উড়িষ্যায় অবস্থান করে। এটি আরও পশ্চিম-উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমান্বয়ে আরও দুর্বল হয়ে যেতে পারে।

আরও পড়ুন: ঘূর্ণিঝড় গুলাবের নাম যেভাবে এল, এরপর কোনটি?

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বাড়তি অংশ রাজস্থান, মধ্য প্রদেশ, গভীর নিম্ন চাপের কেন্দ্রস্থল এবং উত্তর পূর্ব দিকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বিরাজ করছে রংপুরে ৩৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকায় ৩২ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আগের দিন সোমবার কুমিল্লায় সর্বোচ্চ ৫৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া কিশোরগঞ্জের নিকলিতে ৩৮, চট্টোগ্রামের সন্দ্বীপে ২৫, সীতাকুন্ডে ২২, কক্সবাজারে ২১ ও কুতুবদিয়ায় ১৪ এবং টাঙ্গাইল ১৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এ সময় ঢাকায় ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। এদিন সর্বোচ্চ ৩৬ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল সিরাজগঞ্জের তাড়াশে। সর্বনিম্ন ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল ফেনীতে। ঢাকায় তাপমাত্রা ছিল ৩৫ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

Check Also

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’। বঙ্গোপসাগরের অতি গভীর নিম্নচাপটি আগামী ১২ ঘণ্টার মধ্যে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *